• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | গ্রীষ্মকাল | সকাল ১১:০৯
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুর শহরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রত্যাহার

৫:০৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর জেলা শহরে বণিক সমিতি কর্তৃক খাদ্যদ্রব্য সামগ্রীর দোকান ব্যতীত অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনার একদিন পর সেটি প্রত্যাহার করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে বণিক সমিতির সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম সালাহউদ্দিন টিপু শুক্রবার বিকেলে শহরে দোকানপাট বন্ধের নির্দেশ দেন।

তবে, সরকারীভাবে বা জেলা প্রশাসন কর্তৃক এমন কোন নির্দেশনা জারি করা হয়নি। বণিক সমিতি কর্তৃক দোকানপাট বন্ধের একক সিদ্ধান্তে ক্ষোভে ফেটে পড়েন সাধারণ ব্যবসায়ীরা। নির্দেশনা মেনে শনিবার সকালে দোকানপাট বন্ধ রাখলেও বন্ধের নির্দেশনা প্রত্যাহারের পর দুপুরের পর থেকে খুলতে শুরু করে ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, জেলা প্রশাসন থেকে অনুমতি না নিয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধের কারণে জনসাধারণের মাঝে আতঙ্ক এবং বিভ্রান্তের সৃষ্টি হয়। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়েছে অতি উৎসায়ী ক্রেতারা। এতে কৃত্রিম সংকট দেখিয়ে দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়িয়ে দেয় ব্যবসায়ীরা।

জানা গেছে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে শুক্রবার (২১ মার্চ) বিকেল থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ১১ দিন শহরের জামা-কাপড়, জুতা ও কসমেটিকস’র দোকানগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও লক্ষ্মীপুর বণিক সমিতির সভাপতি একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু। এ কারণে শনিবার দুপুর সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত বাজারের মার্কেটসহ সব দোকান পাট বন্ধ রাখা হয়। এসময় ক্রেতা-বিক্রেতা সবাই হতাশায় পড়েন। দুপুরে বণিক সমিতির ক্রীড়া ও সাংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ এহতেসান হায়দার বাপ্পি ব্যবসায়ীদের দোকান খোলার নির্দেশ দিলে দোকান খোলা শুরু করেন ব্যবসায়ীরা।

সৈয়দ এহতেসান হায়দার বাপ্পি বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের জন্য দোকানপাট বন্ধ-খোলার বিষয় নিয়ে একটু ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে। তবে বণিক সমিতির কার্যকরি পরিষদের এক সিদ্ধান্তের আলোকে দুপুরে ব্যবসায়ীদের দোকান পাট পুনরায় খোলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এনিয়ে কাউকে বিভ্রত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বণিক সমিতির এমন সিদ্ধান্তে বিমুখ লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল। এখনো পর্যন্ত এ জেলায় করোনা ভাইরাসের প্রভাবে দোকানপাট বন্ধ রাখার মত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি বলেন জানান তিনি। একই কথা জানান জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল বলেন, লক্ষ্মীপুরে এখনো করোনা ভাইরাসের প্রভাব তেমনভাবে পড়েনি। এজন্য বাজারে দোকান পাট বন্ধ রাখার কোন সিদ্ধান্ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়নি। তবে বণিক সমিতি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিলে সেটা তাদের একক সিদ্ধান্ত। আর বাজারে দ্রব্যমূল নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মনিটরিং করা হচ্ছে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com