• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • শুক্রবার | ২৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | হেমন্তকাল | রাত ১:৪৬
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের শিক্ষক লিটন সরকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রমাণিত

৭:০৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টে ০১, ২০১৯

প্রবাহ ডেস্ক : লক্ষ্মীপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ৯ম শ্রেণীর পাঁচ ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রমানিত হয়েছে।

রোববার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সংবাদ মাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মাহাবুবুর রশিদ তালুকদার।

এরআগে গতকাল সন্ধ্যায় গঠিত তদন্ত কমিটি রিপোর্ট প্রদান করেন তদন্ত কমিটির প্রধান ও প্রতিষ্ঠানের উপাধ্যক্ষ মির্জা ফিরোজ হাসান জানান, ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের প্রমান পাওয়ায় অভিযুক্ত শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। তদন্ত চলাকালীন সময়ে ওই ৫ শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজনের সাথে একাধিকবার কথা বলে সত্যতা ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি লক্ষ্মীপুর কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্রের শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকার দীর্ঘদিন ধরে ৯ম-১০ম (ভোকেশনাল) শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানের সামনের একটি ঘরে প্রাইভেট পড়াতেন।

এ সুযোগে প্রায়ই শিক্ষার্থীদেরকে যৌন নিপীড়ন করতো বলে অভিযোগ রয়েছে শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে।

খাতায় নাম্বার বেশি দেয়ার লোভ ও পরীক্ষায় ফেল করে দেয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে ৫ শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠে শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে।

যৌন নিপীড়নের ঘটনায় গত ১৯ আগষ্ট অভিযুক্ত শিক্ষক লিচন চন্দ্র সরকারের বিচার চেয়ে ৫ শিক্ষার্থী অধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়। এর পরের দিন প্রতিষ্ঠানের উপাধ্যক্ষ মো. মির্জা ফিরোজ হাসানকে প্রধানকে করে তিন সদস্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মাহাবুবুর রশিদ তালুকদার।

কমিটির অন্য সদস্য হলেন, প্রতিষ্ঠানের চীফ ইনস্ট্রাক্টর ইলেকট্রনিক্স মো. আরিফুর রহমান ও লাভলী ত্রিপুরা। উক্ত কমিটিকে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেন অধ্যক্ষ।
এদিকে শিক্ষার্থীদের যৌন হয়রানীর অভিযোগ ওঠার পর অভিযুক্ত শিক্ষক লিটন চন্দ্র সরকারকে কতৃপক্ষ কৌশলে ছুটিতে ছুটিতে পাঠানোয় অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

ঘটনার পর থেকে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছে ওই শিক্ষার্থীরা। ছেড়ে দিয়েছে লেখাপড়া ও খাওয়া-দাওয়া। ইতিমধ্যে তিন শিক্ষার্থী অসুস্থ্য হয়ে পড়েছেন। দ্রুত অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী করেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com