• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • রবিবার | ২৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | গ্রীষ্মকাল | বিকাল ৫:৪১
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরে ‘আজানা’ প্রাণীর মাংসের ব্যবসা, আটক ২

১:৩৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রু ২০, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক: লক্ষ্মীপুর জেলা শ্রমিকলীগের আহ্বায়ক ইউসুফ পাটওয়ারী দীর্ঘদিন থেকে ‘অজানা’ মাংসের ব্যবসা চালিয়ে আসছেন। স্থানীয় হোটেলগুলোতে মাংসগুলো গরুর মাংস হিসেবে চালিয়ে দিলেও সেগুলো আসলে কিসের মাংস তা সুনির্দিষ্টভাবে জানে না কেউ। বিগত কয়েক বছর থেকে অনেকটা গোপনে জেলা শহরের মাদামে একটি গোডাউনে মাংসগুলো রেখে তিনি এ ব্যবসা চালিয়ে আসছেন বলে জানা গেছে।

শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে মাদাম এলাকা থেকে প্রায় ৬ মন মাংস জব্দ করেছে পুলিশ। এ সময় তার দুই কর্মচারীকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, চাঁদপুর জেলার মতলব উপজেলার শাহ আলমের পুত্র মো. শাকিল (২৭) ও লক্ষ্মীপুর শহরের মাদাম এলাকার আবুল খায়েরের পুত্র রহিম (৩০)। তাদের মধ্যে শাকিল শ্রমিকলীগ নেতা ইউসুফ পাটওয়ারীর ম্যানেজার এবং রহিম একজন অটোরিকশা চালক।

মাংসগুলো বৈধভাবে পাশ্ববর্তী দেশ ভারত থেকে আমদানি করা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন শ্রমিকলীগ নেতা ইউসুফ পাটওয়ারী।

তিনি দাবি করেছেন, তার কাছে মাংসগুলো কিনে আনার বৈধ কাগজপত্র আছে। মাংসগুলো কিসের জানতে চাইলে তিনি বলেন, এগুলো গরু বা মহিষের মাংস।

যদিও সেগুলো আসলে কিসের মাংস তা সুনির্দিষ্টভাবে বলতে পারেনি আটককৃতরা।

গত কয়েক বছর ধরে এগুলো গরুর মাংস হিসেবে জেলার বিভিন্ন খাবারের হোটেলে বিক্রি করা হচ্ছে। সাধারণত গরুর মাংসের চেয়ে এগুলোর দাম অনেকে কম।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার জকসিন বাজারের একজন মাংস বিক্রেতা নাম না প্রকাশে জানিয়েছেন, সাধারণত গরুর মাংস তারা ৭০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেন। কিন্তু তার পাশ্ববর্তী একজন মাংস ব্যবসায়ী ভারত থেকে আমদানী করা এ মাংস কম দামে কিনে এনে গরুর মাংসের সাথে মিশিয়ে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করছেন। এতে ক্রেতারা প্রতারিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন থেকে কসাইয়ের কাজ করেছি। গরু, ছাগল বা মহিষের মাংস দেখলেই বুঝি। কিন্তু এগুলো কিসের মাংস তা বুঝা যাচ্ছে না।

পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে ঢাকা থেকে ইকোনো পরিবহনের মাধ্যমে ১৫ বাক্স মাংস লক্ষ্মীপুরে নিয়ে আসা হলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে মাংসগুলো জব্দ করা হয়। এসময় গাড়ি থেকে সেগুলো নামানোর সময় দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মমিনুল হক বলেন, মাংসগুলো কিসের তা বলা যাচ্ছে না। তদন্ত করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মাংসসহ আটককৃত দুইজনকে থানায় রাখা হয়েছে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com