• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শরৎকাল | সকাল ৭:১২
  • আর্কাইভ

রামগঞ্জে যুবলীগ কর্মী খুন,খুনি আটক

১:৩৬ পূর্বাহ্ণ, জুলা ০৯, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ভাগিনাকে মারধরের প্রতিবাদ করায় আনিছুর রহমান আজাদ (৪৫) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

এসময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে ইব্রাহিম মিয়া নামে আরেকজন আহত হন। এদিকে খবর পেয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত মো. মহসিনকে আটক করে পুলিশ।

সোমবার (৮ জুলাই) রাত ৮ টার দিকে উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের উত্তর ভাটরা নান্দিয়ারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আনিছুর রহমান আজাদ ভাট্রা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির  সদস্য ও ১০ নং ভাট্রা ইউনিয়ন যুবলীগের কর্মী এবং নান্দিয়ারা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। আটক মহসিন একই এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

নিহত আজাদের ভাগিনা ও উপজেলা ছাত্রলীগের উপ-শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক রিয়াদ হোসেন টিটু বলেন, সন্ধ্যায় নান্দিয়ারা বাজারের একটি দোকানে মহসিন কোন কারণ ছাড়াই ইব্রাহিম মিয়াকে মারধর করছিল। মারধরের কারণ জানতে চাইলে মহসিন আমাকেও মারধর করে।

এসময় হঠাৎ দারালো অস্ত্র বের করে মহসিন আমাকে তাড়া করে। একপর্যায়ে আমি দৌড়ে পালিয়ে যাই। পরে আমার মামা আনিছুর রহমান আজাদকে মোবাইলে ঘটনাটি জানাই।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মহসিনের কাছে ভাগিনা টিটুকে মারধরের কারণ জানতে চায় আজাদ। এসময় তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে মহসিন ক্ষিপ্ত হয়ে দা দিয়ে আজাদকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। এতে বাঁধা দিতে গেলে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ইব্রাহিমও আহত হন। পরে স্থানীয়রা আহত ইব্রাহীমকে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনায় সঙ্গে জড়িত মহসিনকে আটক করা হয়েছে। থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছ।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com