• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | বর্ষাকাল | বিকাল ৩:৫৯
  • আর্কাইভ

রামগঞ্জে ইটভাটায় তিন শ্রমিক নিহতের ঘটনায় মামলা, ভাটা মালিক ও ম্যানেজার গ্রেপ্তার

৩:৫৩ অপরাহ্ণ, মে ২৪, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ইটভাটার চুল্লির দেয়াল ধ্বসে দুই সহোদরসহ তিন শ্রমিক নিহতের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার রাতে নিহত দুই সহোদরের ছোটভাই হেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে রামগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করেন। এতে মদিনা ব্রিক্স’র মালিক আমির হোসেন ডিপজল ও ম্যানেজার স্বপন মিয়াসহ তিনজনকে আসামী করা হয়। রাতেই পুলিশ পৌর এলাকার ৫নং ওয়ার্ডে অভিযান চালিয়ে ভাটা মালিক ও ম্যানেজারকে গ্রেপ্তার করে।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন জানান, তিনজন নিহতের ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় ভাটা মালিকসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সোমবার (২৪ মে) তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়।

এদিকে রামগঞ্জে পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার পাঁয়তারা অভিযোগ উঠেছে। রাতেই নামমাত্র ক্ষতিপূরণের বিনিময়ে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চালান তিনি। তার অফিস থেকে পুলিশ অভিযুক্ত ভাটা মালিক ও ম্যানেজারকে গ্রেপ্তার করে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে কাউন্সিলর দেলোয়ার বলেন, ‘অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমার কাছে ভাটা মালিকের লোকজন আসে বিষয়টি সমাধানের জন্য।’

উল্লেখ্য, লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ইট পোড়ানোর চুল্লির দেয়াল ধ্বসে পড়ে দুই সহোদরসহ তিনজন নিহত হয়েছে। রোববার (২৩ মে) বিকেলে উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের দেহলা গ্রামের ‘মদিনা ব্রিক্স’ নামক ওই ইটভাটায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, বেলাল হোসেন (৩২) ও তার ভাই ফারুক হোসেন (২০) এবং রাকিব হোসেন (১৮)। তারা তিনজনই ওই ভাটার শ্রমিক ছিলেন। নিহত দুই সহোদর জেলার কমলনগরের চরজগবন্ধু গ্রামের আলতাফ মাঝির ছেলে।

এ ঘটনায় আরও অন্তত ১০ শ্রমিক আহত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আহতদের রামগঞ্জ উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। তবে তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও ভাটা শ্রমিকরা জানায়, রবিবার বিকেলে ভাটায় নিয়োজিত ১৫-২০ জন শ্রমিক চুল্লিতে কাঁচা ইট সাজানোর কাজ করছিলেন। হঠাৎ করেই চুল্লির উত্তর পাশের দেয়ালটি শ্রমিকদের উপর ধ্বসে পড়ে। এতে শ্রমিক বেলাল ও ফারুক ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে আহতদের মধ্যে রাকির হোসেনকে জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে সেও মারা যায়।

এদিকে, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহগুলো আনার সময় ভাটা শ্রমিকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে এবং ভাটা মালিক আমির হোসেন ডিপজলের বিচার দাবি করেনশ্রমিকদের অভিযোগ, ভাটার চুল্লি আগ থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ ছিলো। বিষয়টি তারা ভাটা মালিককে অবহিত করলেও তিনি কোন ব্যবস্থা নেননি।

 

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com