• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | বর্ষাকাল | বিকাল ৫:৪৬
  • আর্কাইভ

মেঘনার ভাঙ্গনরোধে বাঁধ নির্মাণ প্রকল্পটি একনেক সভায় অনুমোদনের দাবিতে কমলনগরে মানববন্ধন

৯:৫৫ অপরাহ্ণ, মে ৩১, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : নদী ভাঙ্গনরোধে তীর রক্ষাবাঁধ নির্মাণের প্রকল্পটি ১লা জুলাই জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (একনেক) সভায় অনুমোদনের দাবীতে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে স্থানীয়রা। সোমবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত দুই ঘন্টাব্যাপী কমলনগর-রামগতি বাঁচাও মঞ্চ নামের একটি সংগঠনের উদ্যোগে উপজেলার মাতাব্বরহাট বাজার সংলগ্ন মেঘনা নদীর তীরে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধনে কয়েক হাজার ভাঙ্গনকবলিত নারী-পুরুষ অংশ নেয়।

এতে মেঘনার আগ্রাসী ভাংগন থেকে কমলনগর-রামগতিকে রক্ষায় ভাংগন প্রতিরোধে তীর রক্ষাবাঁধ নির্মাণের প্রকল্পটি একনেক সভায়-এ অনুমোদন দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেন বক্তারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কমলনগর-রামগতি বাঁচাও মঞ্চের আহবায়ক এ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার পলোয়ান, রামগতি উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মেজবাহ উদ্দিন হেলাল, চর ফলকন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী হারুনুর রশিদ, মাতাব্বরহাট সমাজকল্যাণ পরিষদের সভাপতি ওমর ফারুক, কমলনগর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাজ্জাদুর রহমান, স্থানীয় ইউপি সদস্য ইব্রাহিম খলিল ও পাটোয়ারীর হাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিব হোসেন লোটাসসহ অনেকে।

এসময় বক্তারা বলেন, নদী ভাঙ্গনে রামগতি-কমলনগর উপজেলার প্রায় তিনশ বর্গকিলোমিটার এলাকা বিলীন হয়ে গেছে। এরই মধ্যে ৩৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ২৬টি বাজার ৩৭ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ, রাস্তাঘাট ও সরকারি- বেসরকারি বিভিন্ন স্থাপনা নদী গর্ভে তলিয়ে গেছে। লাখ লাখ মানুষ আজ বাস্তু ভিটা হারিয়ে যাযাবর জীবনযাপন করছেন। এ অবস্থায় আগামী একনেক সভায় নদীর তীর রক্ষাবাঁধ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য রামগতি-কমলনগরের প্রায় ৭ লাখ মানুষ প্রধানমন্ত্রীর দিকে তাকিয়ে আশার বুক বাঁধছেন বলে জানান বক্তারা।

উল্লেখ্য, লক্ষ্মীপুরের রামগতি ও কমলনগর উপজেলার বড়খেরী, লুধুয়া বাজার ও কাদির পন্ডিতেরহাট এলাকায় রক্ষা বাঁধ শীর্ষক প্রকল্পটি সম্পূর্ণ জিওবি অর্থায়নে মোট ৩ হাজার ৮৯ কোটি ৯৬ লাখ ৯৯ হাজার টাকার প্রাক্কালিক ব্যায়ে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারী থেকে ২০২৫ সালের জুন পর্যন্ত মেয়াদে বাস্তবায়নের নিমিত্তে ১লা জুলাই একনেক সভায় উপস্থাপন জন্য সার সংক্ষেপ (পতাকা-ক) এর খসড়া প্রণয়ন করা হয়েছে। উক্ত প্রকল্পটির খসড়া প্রনয়ন সার সংক্ষেপ (পতাকা-ক) চলতি মাসের ১৭ তারিখে পরিকল্পনা মন্ত্রী চুড়ান্ত স্বাক্ষরে অনুমদিত হয়ে একনেক সভায় উপস্থাপনের জন্য চুড়ান্ত করা হয়। এতে রামগতি-কমলনগরের ৭ লাখ মানুষ আশার আলো দেখছেন।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com