• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | বর্ষাকাল | দুপুর ১২:১৫
  • আর্কাইভ

ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করতে চান চরপোড়াগাছা ইউনিয়ন আ.লীগের কাউন্সিলররা

৮:১৬ অপরাহ্ণ, জুন ০৯, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরপোড়াগাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউন্সিলররা ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করতে চাচ্ছেন। একপেশে কমিটি গঠন না করে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মতামতকে গুরুত্ব দিয়ে আনুষ্ঠানিক সম্মেলন করে কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী ও ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুরুল আমিন হাওলাদার কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল স্বপন এমপির কাছে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন। গত ১৫ মে করা আবেদনে তিনি সম্মেলন করে ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্ধারনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করেন।

জানা গেছে, চর পোড়াগাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনের জন্য বেশ কয়েকবার উদ্যোগ নেওয়া হলেও সম্মেলন আর অনুষ্ঠিত হয়নি। সর্বশেষ গত ১৪ এপ্রিল ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারণ করে উপজেলা আওয়ামী লীগ। এ লক্ষ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থীদের উপজেলা আওয়ামী লীগের কাছে জীবনবৃত্তান্ত জমা দিতে বলা হয়। পদপ্রত্যাশী ৭ জন কাগজপত্র জমা দেন। এদের মধ্যে সভাপতি পদে তিনজন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ৪ জন। তাদের মধ্যে প্রতীকও বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। প্রার্থীরা কাউন্সিলরদের ভোট পেতে বিভিন্ন প্রতীক দিয়ে ব্যানার-ফেস্টুন ও পোষ্টার টাঙিয়েছেন। তবে ওই নির্দিষ্ট তারিখে কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়নি। ফলে প্রদপ্রত্যাশী, কাউন্সিলর এবং সাধারণ নেতাকর্মীরা অনেকটা আশাহত হয়ে পড়েছেন।

তবে সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দলের সভাপতি প্রার্থী হয়েছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন হাওলাদার (ছাতা), আবুল কালাম (চেয়ার) ও ইব্রাহিম খলিল (মোটরসাইকেল) এবং সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন শেখ ফরিদ (পানির কল), গিয়াস উদ্দিন মেম্বার (মোরগ), সালাউদ্দিন মাষ্টার (আনারস) ও ইব্রাহিম আশিক (দেওয়াল ঘড়ি)।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি হলেন আবুল কালাম ও সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মেম্বার।

নাম না প্রকাশে স্থানীয় কয়েকজন কাউন্সিলর বলেন, বর্তমান সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক ভোট ছাড়াই পুনরায় পদে আসতে চাচ্ছেন। তাই সম্মেলন আয়োজনে টালবাহানা করছেন তারা। আর রহস্যজনক কারনে সম্মেলনের সুনির্দিষ্ট তারিখ নির্ধারণ হয়নি। পছন্দের লোক দিয়ে কমিটি গঠনের পাঁয়তারা চলছে।

সভাপতি প্রার্থী নুরুল আমিন চেয়ারম্যান বলেন, বিনাভোটে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা নির্বাচনের প্রক্রিয়া চলছে। কিন্তু আমরা চাই সম্মেলনের মাধ্যমে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে নেতা নির্ধারণ করা হোক।

সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী সালাউদ্দিন মাষ্টার বলেন, ২০১৯ সাল থেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনর জন্য ৮-৯ টা তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু আজো সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি। আমি আনারস প্রতীকে প্রার্থী হয়েছি। ছাত্রলীগ থেকে শুরু করে যুবলীগের রাজনীতি করেছি। এখন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিতে চাচ্ছি। তাই কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করা হলে আমি জয়ী হবো।

বলেন, উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নে ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করা হয়েছে। এখন আমাদের ইউনিয়নসহ উপজেলার দুটি ইউনিয়ন বাকী আছে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের গতি আনতে অতিস্বত্ত্বর সম্মেলনের দিনক্ষণ ঘোষণার জন্য জেলা-উপজেলা নেতৃবৃন্দের কাছে দাবি জানাচ্ছি।

দলীয় সূত্র জানায়, ইউনিয়নের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে কাউন্সিলরদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগে ৬৫ জন, প্রতিটি ওয়ার্ডে ১৯ জন করে ৯ ওয়ার্ডে ১৭১ জন এবং বিশেষ বিবেচনায় ১৫ জনসহ মোট ২৫১ জন কাউন্সিলরের তালিকা গঠন করা হয়।

এ বিষয়ে বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর ও প্রার্থীদের সাথে কথা বললে তারা ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করার পক্ষে মত প্রদান করেন। তারা জানান, ২৫১ জন সদস্যের মধ্যে অন্তত ২০০ জন কাউন্সিলর চাচ্ছেন তাদের মতামতের ভিত্তিতে ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচিত করা হোক। এতে তৃণমূলের মতামতের গুরুত্ব পাবে এবং যোগ্য ব্যক্তি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আসবে। উপজেলার প্রায় সবকটি ইউনিয়নে ভোটের মাধ্যমে কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুধু এ ইউনিয়ন নিয়ে তালবাহানা দেখা দিয়েছে। বিষয়টি রহস্যজনক বলে মনে করছেন তারা।

সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মেম্বার বলেন, সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করবে জেলা এবং উপজেলা আওয়ামী লীগ। আমরা শুধু আয়োজন করতে পারি। তারিখ ঘোষণা না হওয়ার আয়োজন করা যায়নি। ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করা হয়, নাকি আলোচনার মাধ্যমে কমিটি দেওয়া হবে- সেটা জেলা-উপজেলা নেতৃবৃন্দ সিদ্ধান্ত নেবেন।

জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল ওয়াহেদ বলেন, জেলা নেতাদের সাথে কথা বলে সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হবে। সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ এবং তৃণমূল নেতারা যে সিদ্ধান্ত দেয় সে সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে কমিটি গঠন করা হবে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com