• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ৫ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | শরৎকাল | রাত ২:০১
  • আর্কাইভ

বিএনপির সমাবেশ শুরুর আগেই হামলা চালালো ছাত্রলীগ

৮:৩৪ অপরাহ্ণ, আগ ১২, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সমাবেশের প্রস্তুতি নেয় লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপি। এ লক্ষ্যে জেলা বিএনপির সচিব সাহাব উদ্দিন সাবুর বাসভবন প্রাঙণে সমাবেশের আয়োজন করা হয়। তবে সমাবেশ শুরুর আগেই সেখানে হামলা চালিয়ে চেয়ার ভাংচুর করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় ব্যানার ছিঁড়ে ফেলেছে হামলাকারীরা।

লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের নব গঠিত কমিটির সহ-সভাপতি সেবাব নেওয়াজের নেতৃত্বে শুক্রবার (১২ আগস্ট) দুপুর ১২ টার দিকে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপির নেতারা৷

তবে ছাত্রলীগ নেতারা অভিযোগ অস্বীকার করে ঘটনাকে বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলকে দায়ি করেছেন।

এদিকে হামলার একটি সিসি টিভির ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এতে দেখা যায়, কয়েকজন বিক্ষুব্ধ লোক বিএনপি নেতা সাহাবুদ্দিন সাবু বাস ভবনের প্রাঙ্গনে ঢুকে চেয়ার ভাংচুর করছে।

অভিযুক্ত ছাত্রলগ নেতা সেবাব নেওয়াজের বাবা শাহনেওয়াজ আহমেদ শানু বিএনপি নেতা হিসেবে পরিচিত। তবে তার কোন পদ-পদবী নেই।

বিএনপি সূত্র জানায়, লোডশেডিং ও জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সমাবেশে প্রস্তুতি নেওয়া হয়। ঘটনার সময় ছাত্রলীগ নেতা সেবাবের নেতৃত্বে ৩০-৪০ জন নেতাকর্মী এসে সভাস্থলে হামলা চালায়। এসময় তারা ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে। সমাবেশস্থলে রাখা প্রায় ৫০ টি প্লাষ্টিকের চেয়ার ভাঙচুর করে৷ এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে কোন কারণ ছাড়াই কলেজ রোড এলাকায় ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের তারা ধাওয়া করেছে। এছাড়া হাসপাতাল রোড এলাকায় তারা বিএনপির ব্যানার-ফেস্টুনও ভাঙচুরের অভিযোগ রয়েছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে।

জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক এডভোকেট হাছিবুর রহমান বলেন, হামলার ঘটনাটি আমরা পুলিশকে জানিয়েছে। ঘটনার সময় সমাবেশস্থল এলাকায় পুলিশের উপস্থিতি ছিল। বৃহস্পতিবার রাতেও ছাত্রলীগ কোন কারণ ছাড়াই আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। আমাদের দলে কোন কোন্দল নেই। নতুন কমিটি পেয়ে ছাত্রলীগ বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।

জেলা যুবদলের সভাপতি রেজাউল করিম বলেন, ছাত্রলীগ নেতা সেবাব নেওয়াজের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়েছে। নতুন কমিটি পেয়ে আলোচনায় আসতে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

ছাত্রলীগ নেতা সেবাব নেওয়াজ বলেন, ভিডিও ফুটেজে আমি নেই। আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হয়েছে। হামলার ঘটনার বিষয়ে আমি কিছুই জানি না।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম রকি বলেন, বিএনপির দলীয় কোন্দলের কারণে তারা নিজেরাই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। এতে ছাত্রলীগের কেউ জড়িত নয়।

অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার (প্রশাসন) পলাশ কান্তি নাথ সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। একটি ভিডিও দেখেছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com