• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | বর্ষাকাল | সন্ধ্যা ৬:০২
  • আর্কাইভ

হাসপাতালে স্ত্রী’র লাশ রেখে পালিয়েছে স্বামী !

৩:৫১ অপরাহ্ণ, এপ্রি ২১, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে যৌতুকের দাবিতে জোসনা বেগম (২৫) নামের এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (২১ এপ্রিল) সকালে গৃহবধূর লাশ সদর হাসপাতালে রেখে তার স্বামী পালিয়ে যায়।

স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন নির্যাতন চালিয়ে তাকে হত্যা করেছে বলে দাবি নিহতের স্বজনদের।

অভিযুক্ত স্বামী সুজন সদর উপজেলার পিয়ারাপুর এলাকার মমিন উল্যাহ পাটওয়ারীর ছেলে। জোসনা লক্ষ্মীপুর পৌরসভার বাঞ্চানগর এলাকার মো. বাহারের মেয়ে। ৬ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

নিহতের স্বজনরা জানায়, বিয়ের পর থেকেই জোসনাকে যৌতুকের জন্য চাপ দেয় স্বামী সুজনসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এছাড়া তার স্বামী একাধিক পরকিয়া প্রেম করছিল। এসব নিয়ে বিভিন্ন সময় জোসনা বেগমকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করা হত। শুক্রবার (২০ এপ্রিল) সকালে তাকে মারধর করা হয়েছে।

সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের পরিবার বিষয়টি মীমাংসা করে। তবে রাতের কোন এক সময়ে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য সকালে নিহতের মরদেহ সদর হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন। অভিযোগ স্বজনদের।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, মৃত অবস্থায় জোসনাকে হাসপাতালের নিয়ে আসা হয়। পরে হাসপাতালে মরদেহ রেখে তার স্বামী পালিয়ে যায়।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লোকমান হোসেন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। মরদেহ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com