• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার | ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | গ্রীষ্মকাল | সকাল ৯:৫৩
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুর বিসিকে বিদেশী মদসহ নেক্সট ফুড বেভারেজের গাড়ি চালক গ্রেফতার

৪:৪৯ অপরাহ্ণ, এপ্রি ০৫, ২০২১

প্রবাহ ডেস্ক : লক্ষ্মীপুর বিসিক শিল্প এলাকা থেকে বিদেশী মদ ও নগদ প্রায় ৩০ লাখ টাকাসহ ‘নেক্স ফুড বেভারেজ’ নামে একটি চকলেট কোম্পানী’র গাড়ি চালক মোঃ জহির হোসেন প্রকাশ মিজি (৪৫) কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। তবে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত কোম্পানীটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিএফও) মোঃ ওসমান গনি মিন্টু (৫৬) পলাতক রয়েছে।  র‌্যাব সদস্যরা  তার ব্যবহৃত প্রাইভেট কারটি জব্দ করে।

সোমবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১১ এর লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার মোঃ শামীম হোসেন।

গ্রেফতারকৃত মোঃ জহির হোসেন মিজি চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জের চরডুকিয়া গ্রামের মৃত আবদুল হাসেম মিজি’র ছেলে। তিনি বর্তমানে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের সাহাপুর এলাকায় বসবাস করেন। পলাতক (সিএফও) মোঃ ওসমান গনি মিন্টু একই এলাকার মৃত ডাক্তার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।

জানা যায়, লক্ষ্মীপুর বিসিক শিল্প নগরী এলাকায় বিশাল প্লট নিয়ে চকলেট কোম্পানী নেক্স ফুড বেভারেজ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড নামে একটি কারখানা প্রতিষ্ঠান করেন বাংলাদেশের সুনাম ধন্য ‘ভাইয়া গ্রুপ। এতে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিএফও) দায়িত্বে রয়েছেন মোঃ ওসমান গনি মিন্টু। দীর্ঘদিন থেকে তিনি ও তার গাড়ি চালক মোঃ জহির হোসেন মিজি যোজসাজসে বিদেশী মদসহ মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলো।

এমন অভিযোগে রবিবার (৪এপ্রিল) গোপনে লক্ষ্মীপুর বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব-১১। এ সময় বিসিক সংলগ্ন রাকিব নামে এক ব্যক্তির দ্বিতলা বিল্ডিং থেকে গাড়ি চালক মোঃ জহির হোসেন মিজি কে আটক করে তারা। উদ্ধার করা হয় তার সাথে থাকা ৫ বোতল বিদেশী মদ, ২টি প্লাষ্টিকের বোতলে ৪০০ মি. লি. বিদেশী মদ, একটি মোবাইল ফোন, তাদের ব্যবহৃত কালো রংয়ের টয়োটা হ্যারিয়ার প্রাইভেট কার ও মাদক বিক্রয়ের নগদ ২৯ লক্ষ ৯৩ হাজার ৫০০ টাকা।

র‌্যাব-১১ কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার মোঃ শামীম হোসেন জানান, গ্রেফতারকৃত মিজিকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় ‘নেক্স ফুড বেভারেজ ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড’ এর সিএফও মোঃ ওসমান গনি মিন্টু এ মাদক কারবারির সাথে জড়িত। চালক মজি ও মিন্টু দীর্ঘদিন পরষ্পর যোগসাজসে মাদক দ্রব্য ক্রয় বিক্রয় করে আসছে। এ ঘটনায় আসামীদের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com