• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার | ৭ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | হেমন্তকাল | রাত ৩:৪৯
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরে আবারও ৯ কারারক্ষীর বিরুদ্ধে মামলা

১০:১৫ অপরাহ্ণ, আগ ০১, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : মারধরের অভিযোগে লক্ষ্মীপুরে জেলা কারাগারের ৯ কারারক্ষীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (৩১ জুলাই) লক্ষ্মীপুর সদর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে মামলাটি দায়ের করেন আসিবুল হাসান (২৬) নামের এক যুবক। তিনি জেলা কারাগার সংলগ্ন আটিয়াতলী গ্রামের মো. শাহজাহানের পুত্র।

 

এর আগেও তিনি কারাগারের জেলারসহ ১১ জন কারারক্ষীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় বিবাদীদের বিরুদ্ধে `ইয়াবা ব্যবস্যার’ প্রতিবাদ করায় বাদিকে মারধরের অভিযোগ আনা হয়। আদালত দুই মামলার তদন্তভার দেয় পুলিশ ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই)।

 

মামলায় অভিযুক্ত কারারক্ষীরা হলেন- মো. সাখাওয়াত হোসেন, মো. নাছির, শরীফ, মো. আলমগীর, মো. কবির, দেবাশিষ, আনোয়ার, জাহিদ, হাবিব।

 

এজাহারে বাদি অভিযোগ করেন, গেল ৩১ মে রাত সোয়া ৮ টার দিকে মো. নাছির ও মো. আলমগীর নামের দুই কারারক্ষী জেলা কারাগার সংলগ্ন এলাকায় ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়ের সময় আসিবুল হাসান ও এলাকাবাসী তাদের ধাওয়া করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কয়েকজন কারারক্ষী স্থানীয় লোকজন ও তার ওপর হামলা করে।

 

এ ঘটনায় আসিবুল হাসান বাদি হয়ে আদালতে মামলা করলে স্থানীয় লোকজনের বিরুদ্ধে সদর থানায় পাল্টা মামলা দায়ের করেন জেলা কারাগারের জেলার শাহ আলম।

 

আসিবুলের পূর্বের দায়েরকৃত মামলাটি বিজ্ঞ আদালত আমলে নিয়ে নোয়াখালীর পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দেন।

 

মামলার বাদি জানান, আদালতের বিবাদীর বিরুদ্ধে মামলা করায় তিনি হুমকির মুখে ছিলেন। গেল ২৩ জুন বিবাদীরা হুমকি দেয় মর্মে আদালতে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে অভিযুক্ত কারারক্ষীরা গেল মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) সন্ধ্যায় কারাগারের বিপরীত পাশে বাদি আসিবুল হাসান ও তার সাথে থাকা নাসির আলম মিশন নামে একজনকে মারধর করে। এতে গুরুতর আহত হয় মিশন। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে।

 

বাদি পক্ষের আইনজীবি সৈয়দ মো. ফখরুল আলম নাহিদ জানান, পূর্বের একটি মামলা সংক্রান্ত জের ধরে কয়েকজন কারারক্ষী বাদি আসিবুল হাসানকে মারধর করায় তিনি আদালতে মামলা করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com