• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার | ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | হেমন্তকাল | রাত ১:০৫
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরে অর্থ আত্মসাৎ মামলায় পোস্ট মাস্টার গ্রেফতার

৮:৪৭ অপরাহ্ণ, নভে ১৮, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরে গ্রাহকের সঞ্চয়কৃত অর্থ আত্মসাৎ মামলায় শ্রীবাস চন্দ্র দে নামে এক পোস্ট মাস্টারকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার (১৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চন্দ্রগঞ্জ আমলি আদালতে হাজির করলে টাকা আত্মসাতের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন শ্রীবাস। ওইদিন দুপুরে নোয়াখালীর মাইজদী সুপার মার্কেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

দুদকের নোয়াখালী সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুবেল আহমেদ বলেন, ‘৩০ লাখ ২৭ হাজার টাকা আত্মসাতের ঘটনাটি স্বীকার করে শ্রীবাস আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। আদালতের বিচারক জুয়েল দেব তাকে জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।’

জানা গেছে, শ্রীবাস লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের উপ-ডাকঘরের সাব পোস্ট মাস্টার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বর্তমানে তিনি সাময়িক বরখাস্ত হিসেবে আছেন।

দুদক নোয়াখালী কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, পোস্ট মাস্টার শ্রীবাস চন্দ্র দে’র বিরুদ্ধে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা আত্মসাতের ঘটনায় গত ১৩ মে চন্দ্রগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। সদর উপজেলার দত্তপাড়ার দক্ষিণ মাগুড়ী গ্রামের হাবিব উল্যা নামের এক ব্যাক্তি মামলাটি দায়ের করেন। পরদিন তিনি নোয়াখালী বিভাগের ডেপুটি পোস্ট মাস্টার জেনারেলের কাছেও লিখিত অভিযোগ করেন। এর ভিত্তিতে নোয়াখালী বিভাগের ডেপুটি পোস্ট মাস্টার জেনারেল মো. মনিরুজ্জামান বিষয়টি তদন্তের জন্য দুদকে অভিযোগ করেন।

পরবর্তীতে দুদকের তদন্তে শ্রীবাসের বিরুদ্ধে আরও ৪ গ্রাহকের ২৭ লাখ ৭৭ হাজার টাকা আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া যায়। এরমধ্যে সদর উপজেলার শিল্পির ৫ লাখ টাকা, তোতার খিল গ্রামের রাশেলের ৫ লাখ টাকা, বড়ালিয়া গ্রামের লাখী রানী সূত্র ধরের ৩ লাখ টাকা ও গণেশ্যামপুর গ্রামের কামাল হোসেনের ১৪ লাখ ৭৭ হাজার টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে। এসব টাকার পরিমাণ শুধু গ্রাহকের পাস বইতে উত্তোলন করা হয়েছে। কিন্তু অন্যান্য রেকর্ড এবং সরকারি তহবিলে হিসাবভুক্ত করা হয়নি।

 

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com