• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | দুপুর ২:৩৪
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরের ভবানীগঞ্জে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি স্বতন্ত্র প্রার্থী মামুনুর রশিদের

১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, ডিসে ১৪, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয় পরিষদের নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়েছেন ওই ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মামুনুর রশিদ। মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) রাতে মিয়ার বেড়িতে সাংবাদিকেদের দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি প্রশাসনের কাছে এ দাবি জানান। তিনি ঘোড়া প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এ ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের প্রার্থীসহ মোট ১১জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে লড়াই করছেন।

বলেন, ভোট অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আর্কষণ করছি। নিরেপেক্ষ ভোট হলে জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী। সুষ্ঠু ভোটে যে নির্বাচত হোক আমরা তাকে বরণ করে নেব।

নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী তার কর্মীদের হুমকি দিচ্ছে জানিয়ে মুমুনুর রশিদ বলেন, যিনি নৌকা প্রতীক পেয়েছেন তিনি প্রতিনিয়ত ভোটারদের ধমকাচ্ছেন। নৌকার ভোট না করলে প্রশাসনের মাধ্যমে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কর্মীদের নিয়ে যাবে। কিন্তু আমাদের কর্মীরা প্রস্তুত, তারা ভোট কেন্দ্রে যাবে। নিরপেক্ষ ভোট সমর্থনে তারা যা যা করার প্রয়োজন তা করতে প্রস্তুত।

তিনি বলেন, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ প্রশাসনের প্রতি আমার অনুরোধ কোন প্রার্থীর কর্মী যাতে হয়রানির শিকার না হয়। তাহলে জনগণ বুঝবে প্রশাসন কারো পক্ষে নয়। ২৬ তারিখের নির্বাচনে প্রশাসন নিরপেক্ষ থাকবে।

নৌকার প্রতীকের প্রার্থীর সমালোচনা করে তিনি বলেন, নৌকার প্রার্থীর জনমত নেই। বিতর্কিত লোককে নৌকা দেওয়া হয়েছে। সেজন্য এখন সবাই স্বতন্ত্র ভোট করছে। এ ইউনিয়নে ১১জন স্বতন্ত্র প্রার্থী। ইউনিয়নের মানুষ একটা শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চায়। আমি আশাকরি জনগণের ভোটের যে প্রতিফলন, এখানে সেটা ঘটবে।

নির্বাচিত হলে ভবানীগঞ্জের মানুষের উন্নয়নে কাজ করবেন জানিয়ে তিনি বলেন, ভবানীগঞ্জের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ গরীব, দুঃখী, অসহায়। তাদেরকে সামাজিকভাবে যে সহযোগীতা করার প্রয়োজন তা আমি করবো।

চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বচানে ভবানীগঞ্জে ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এখানে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছেন আবদুল খালেক বাদল, ঢোল প্রতীকে তার সহধর্মীনী তাহমিনা আক্তার, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান চশমা প্রতীকের সাইফুল হাসান রনি, তার মা টেলিফোন প্রতীকের মমতাজ বেগম, মটর সাইকেল প্রতীকের আবদুল হালিম মাষ্টার, রজনীগন্ধা প্রতীকের ফজলুর রহমান ঢালি, ঘোড়া প্রতীকের মামুনুর রশিদ ও আনারস প্রতীকের মোক্তার হোসেন বিপ্লব।

দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ছাড়াও রয়েছেন, অটোরিক্সা প্রতীকের বিএনপিপন্থী শাহ মো. এমরান ও টেবিল ফ্যান প্রতীকের জাহাঙ্গীর আলম এবং ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের মাওলানা মহিউদ্দিন।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com