• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • শুক্রবার | ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | বর্ষাকাল | সকাল ৬:৩৩
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরের তেওয়ারীগঞ্জে চেক প্রতারণার মাধ্যমে ব্যবসায়ীকে হয়রানির অভিযোগ

৬:৪৮ পূর্বাহ্ণ, ডিসে ২০, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পুরাতন তেওয়ারীগঞ্জ বাজারের আবাবিল কো অপারেটিভ সোসাইটি লি: এর বিরুদ্ধে চেক আটক করে প্রতারণার মাধ্যমে এক ব্যবসায়ীকে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।
ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ তেওয়ারীগঞ্জ বাজার বণিক সমিতির সভাপতি।
এ ঘটনার সঠিক বিচার জানিয়ে রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেলে লক্ষ্মীপুরের স্থানীয় একটি চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তিনি।
তিনি বলেন, গত ৪/৫ বছর পূর্বে আমি আবাবিল কো অপারেটিভ সোসাইটি লি: থেকে ঋণ গ্রহণ করি এবং তা সময় মতো পরিশোধ করি। এসময় আমার  কাছ থেকে স্বাক্ষরিত ১৫০ টাকার দুটি অলিখিত  স্ট্যাম্প ও অগ্রনী ব্যাংকের ভবানীগঞ্জ শাখার একটি সাদা চেক জামানত হিসেবে নেওয়া হয়। কিন্তু ঋণ পরিশোধ করার পরও সোসাইটি লোকজন স্ট্যাম্প ও চেক ফেরত দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে কালক্ষেপণ করেন । এ বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠানের সভাপতিকে অবগত করি।
তিনি জানান, এরই মধ্যে সম্প্রতি তার ভাই নুরুল আমিনের সাথে সোসাইটির ম্যানেজার দিদার হোসেন ও পরিচালক মো. টিপু, আনোয়ার হোসেন ফটিক এবং বাজারের একটি দোকান ভিটিকে কেন্দ্র করে বিরোধ দেখা দেয়।
জানা গেছে, এ বিরোধের জের ধরে মো. দিদার হোসেন এবং টিপু প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে আবুল কালাম আজাদের জমাকৃত চেকে ৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা লিখে ব্যাংকে জমা দেন। পরে চেকটি ডিজওনার করে আইনজীবির ম্যাধ্যমে নোটিশ করে ব্যবসায়ী আজাদকে। পরে এ ঘটনায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ওমর হুসাইন ইবনে ভুলু চেকটি ফেরৎ দেওয়ার আশ্বাস দেয়।
কিন্তু বিষয়টি মিমাংসা না হওয়ায় আবুল কালাম আজাদ ওই তিনজনেক আসামী করে গত ১৪ ডিসেম্বর আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য সদর থানা পুলিশকে নির্দেশ দেন।
এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ওমর হোছাইন ইবনে ভুলু বলেন, বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি সমাধান করার চেষ্টা করেছি, তবে সম্ভব হয়নি।
Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com