সোমবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং | ১৪ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | রাত ৯:০৬

লক্ষ্মীপুরের তেওয়ারীগঞ্জে মেম্বারের মদদে অবৈধভাবে চলছে বালু উত্তোলন

নিজস্ব সংবাদদাতা :

সরকারী নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে লক্ষ্মীপুরের তেওয়ারীগঞ্জের বিনোদধর্মপুরে  জনবসতিপূর্ণ এলাকায় পুকুরে মেশিন বসিয়ে চলছে বালু  উত্তোলন। এতে করে ওই এলাকার অসংখ্য বসতবাড়ি,চলাচলের রাস্তা ও কৃষিজজমি যেকোন মূহুর্তে দেবে যাওয়ার আশংকায় রয়েছে। ওইখানে বালু উত্তোলনের এ অপরাধের সাথে  স্থানীয় ইউপি মেম্বার স্বয়ং জড়িত থাকায় তা বন্ধ করতে অপারগ হয়ে পড়েছে এলাকাবাসী।  এ পরিস্থিতিতে  আতংকগ্রস্ত এলাকাবাসী প্রতিকার চেয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এর আলোকে ইউএনও শফিক রেদোয়ান আরমান শাকিল স্থানীয় ভূমি অফিসের সহকারী ভূমি কর্মকর্তাকে ব্যাবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিলেও কার্যত তা হয়নি বলে জানায় স্থানীয়রা।

এলাকাবাসীর অভিযোগে জানা যায়, সদর উপজেলার ১৯ নং তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের বিনোদধর্মপুর এলাকার ওয়াপদাখালের স্লুইস গেইট সংলগ্ন সফিউল্যা মাওলানা বাড়ীর সামনে বেড়িবাঁধের পাশের একটি পুকুর থেকে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। স্থানীয় ইউপি মেম্বার আবু তাহের এর প্রত্যক্ষ মদদে একই গ্রামের দুলাল ও বিল্লাল নামের দুই ভাই গত কয়েকদিন থেকে মেশিন বসিয়ে ওইস্থান থেকে বালু উত্তোলন করছে। বিক্রি করে লাভের উদ্দেশ্যে তারা সরকারের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বালু উত্তোলন করছে বলে জানায় এলাকাবাসী। আইন অনুযায়ী এটি অপরাধ কাজ হলেও মেম্বারের সহযোগীতা থাকায় তারা বিধিনিষেধের কোন তোয়াক্কাই করছেনা। এমনকি স্থানীয়দের বাধাকেও তারা কোনভাবে পরোয়া করছেনা।

নিরূপায় হয়ে বালু উত্তোলন বন্ধে শনিবার এলাকাবাসীর পক্ষে স্থানীয় আরিফ হোসেন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ সংক্রান্ত প্রচলিত আইনের লিখিত অধ্যায় থেকে জানা যায়, বালু মহাল এবং মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুযায়ী পাম্প বা ড্রেজিং বা অন্য কোন মাধ্যমে ভূগর্ভস্থ বালু বা মাটি উত্তোলন করা যাইবেনা। ওই আইনের (৩) উপ-ধারা (২) এ উল্লেখ রয়েছে ড্রেজিং কার্যক্রমে বাল্কহেড বা প্রচলিত বলগেট ড্রেজার ব্যবহার করা যাইবেনা। এবং সর্বোপরি এভাবে বালু উত্তোলন আইনত দন্ডনীয় অপরাধ বলে বিবেচ্য হবে।

কিন্তু সরকারের এই আইন অবজ্ঞা করে স্থানীয় ইউপি মেম্বার প্রভাবশালী আবু তাহেরের প্রত্যক্ষ ইন্ধনে বিনোদধর্মপুর এলাকায় বালু উত্তোলন করায় এলাকাবাসী প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

অভিযোগকারি আরিফ হোসেন সহ এলাকাবাসী জানায়, যেহেতু বালু উত্তোলন অপরাধ কাজ। সেহেতু এখানে বালু উত্তোলন অপরাধে জড়িত অপরাধিদের দন্ডবিধি অনুযায়ী যথাযথ শাস্তির আওতায় আনা সহ বালু উত্তোলন বন্ধ করতে তারা প্রশাসনের সহযোগীতা চেয়েছেন।

সরেজমিনে গিয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত দুলাল ও বিল্লাল জানায়, অর্থনৈতিকভাবে তারা খুবই দুর্বল। দিনমুজুরি করে জীবনযাপন করছে পরিবার পরিজন নিয়ে। সম্প্রতি জরুরীভিত্তিতে পারিবারিক প্রয়োজনে একটি বসত ঘর নির্মানের জন্য তারা নিজেদের ছোট্ট একখন্ড নিচু প্রকৃতির জমি ভরাট করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। তাই কম ব্যায়ে সহজে বালু দিয়ে ভরাট করার উদ্যোগ নেয় তারা। একারনে আগে থেকেই মেম্বার আবু তাহের এর সাথে কথা বলে তার অনুকম্পা আদায় করে নিয়েছেন।

জানতে চাইলে মেম্বার আবুতাহের মুঠোফোনে জানান, তারা খুবই গরীব। জরুরী প্রয়োজনে মানবিক কারনে চেয়ারম্যানের সম্মতি আদায় করে তাদেরকে ওইখানে প্রয়োজনীয় সামান্য কিছু বালু উত্তোলনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে একাজটি রাষ্ট্রীয় অপরাধ বলে তিনি স্বীকৃতি প্রদান করেন।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিক রেদোয়ান আরমান শাকিল মুঠোফোনে জানান, লিখিত অভিযোগপত্রটি তাঁর হাতে পৌঁছেনি এখনো। তবে এই বিষয়টি লোকমাধ্যমে জেনেই তিনি সংশ্লিষ্ট ভূমি সহকারী কর্মকর্তাকে ব্যাবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন বলে জানান।

ওই এলাকার দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী ভূমি কর্মকর্তা ফোনে জানান, তিনি ব্যাক্তিগত প্রয়োজনে ঢাকায় অবস্থান করছেন।

ইউএনও’র নির্দেশ পেয়েই তিনি ওই এলাকার ইউপি চেয়ারম্যানকে ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যাবস্থা গ্রহণ করার জন্য সহযোগীতা চেয়ে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পাদক ও প্রকাশক:

মোহাম্মদ মাহমুদুল হক

প্রধান কার্যালয়ঃ

এ.আর. ম্যানশন
91/1, রেহান উদ্দিন ভূঁইয়া সড়ক
লক্ষ্মীপুর পৌরসভা, লক্ষ্মীপুর।
মোবাইলঃ 01711113943

ই-মেইলঃ dailykalerprobaho@gmail.com

Copyright © 2016 All rights reserved www.kalerprobaho.com

Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com