• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | সকাল ৭:১৮
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরের গন্ধর্ব্যপুরে গভীর রাতে পল্লী চিকিৎসকের ওপর হামলা

১২:১৩ পূর্বাহ্ণ, মে ২০, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার আমিন বাজারে উত্তম পাল নামের এক পল্লী চিকিৎসকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। নিজ বাড়ির লোকজন তাঁর উপর হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। সোমবার (১৮ মে) দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে মান্দারী ইউনিয়নের গন্ধর্ব্যপুর গ্রামের পাল বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ভূক্তভোগী উত্তম পালের অভিযোগ, সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয়ের জেরে বাড়ির লোকজন তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। সোমবার রাত প্রায় ১টার দিকে ছেলে শুভকে নিয়ে তিনি আমিন বাজারের ফার্মেসী দোকান থেকে বাড়ি যান। এ সময় একই বাড়ির প্রদীপ পাল, গণেশ পাল, টিটু পাল ও তার পিতা খোকন পাল, রবিন পাল, দিলীপ পাল ও তার দুই ছেলে অপি পাল এবং রবিন পাল, ননী গোপাল পালের তিন পুত্র ছোটন, বিপুল ও রবি শংকর পাল এবং আমু পালের পুত্র সুমন পাল মিলে সঙ্গবদ্ধ হয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়।

এতে উত্তম পালের শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাত লাগে। পরে তিনি সদর হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।

উত্তম পাল বলেন, কয়েক বছর আগে তিনি একই বাড়ির আশু বালার কাছ থেকে ৪৫ শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করেন। কিন্তু ওই জমির কিছু অংশ বাড়ি অন্য লোকজন দখল করে রেখেছেন। এছাড়া সম্প্রতি তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে আর্থিক সংকটে পড়েন। এতে তিনি ১১ শতাংশ সম্পত্তি বিক্রি করেন। একই বাড়ির নিজ সম্প্রদায়ের লোকজনকে সম্পত্তি ক্রয়ের জন্য প্রস্তাব দেন। এতে কেউ রাজি না হয়ে তিনি প্রতিবেশী এক মুসলমান সম্প্রদায়ের লোকের কাছে সম্পত্তি বিক্রি করে দেন।

এতে পুরোপুরি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন বাড়ির লোকজন। অন্য ধর্মের লোকের কাছে জমি বিক্রির অভিযোগ তুলে তাকে বিভিন্নভাবে মানষিক এবং সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করে। এ বিষয়ে ধর্মীয় সংগঠনের কাছেও বাড়ির লোকজন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে তদন্তে তিনি নির্দোষ প্রমানিত হন।

তিনি বলেন, প্রতিনিয়ত বাড়ির লোকজন আমাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। সর্বশেষ সোমবার রাতে বাড়ির লোকজন একত্রিত হয়ে আমাদের ওপর হামলা করে। আমি আমার স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে নিরাপত্তহীনতায় ভূগছি। বাড়ির লোকজন আমাদের এলাকাছাড়া করারও হুমকি দিচ্ছে। তারা চাচ্ছে আমরা পিতৃপুরুষের ভিটেমাটি ছেড়ে চলে যাই। পূর্বেও আমার বাড়িতে দুই বার ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতদল গুলিবর্ষণ করে আমাদের মূল্যবান মালামাল লুটে নেয়। এসব ঘটনায় তাদের ইন্ধন থাকার অভিযোগ করেন তিনি।

এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম উদ্দিন বলেন, হামলার বিষয়টি আমাকে মৌখিক অবগত করা হয়েছে। থানায় লিখিত অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com