• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | সকাল ৭:০০
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরের কলেজছাত্রকে নোয়াখালীতে ডেকে নিয়ে হত্যা

৪:৪২ অপরাহ্ণ, সেপ্টে ০৭, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মী করে মুক্তিপণ না পেয়ে লক্ষ্মীপুরের জসিম উদ্দিনকে (২১) নামে এক কলেজ ছাত্রকে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে পিটিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। রোববার রাত ৮টার দিকে লক্ষ্মীপুর-নোয়াখালীর সিমান্তবর্তী বেগমগঞ্জ উপজেলার রমনীর হাট এলাকার জাহানারাবাদ গ্রামে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত জসিম উদ্দিন লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জের কফিল উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এইচএসসির শিক্ষার্থী ও চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের পশ্চিম লতিফপুর গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে।

সোমবার সকালে এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখ করে বেগমগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এর আগে রাতে এ ঘটনায় রোশন আরা নামে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। তার মেয়ে পিংকি জসিমকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে যায়।

নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা জানায়, রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কলেজ ছাত্র জসিম উদ্দিন তার বাবার ওষুধের জন্য চন্দ্রগঞ্জ বাজারে যায়। এসময় কে বা কারা তাকে লক্ষ্মীপুর-নোয়াখালীর সীমান্তবর্তী নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার আমীন বাজারে মোবাইল ফোনে ডেকে নেয়। পরে সেখানে তাকে জাবেদ, মানিক, রাহাত ও বাবুলসহ কয়েক সন্ত্রাসী অস্ত্রের মুখে রমনীর হাটের জাহানারাবাদ তুলে নিয়ে যায়। পরে জসিমের পরিবারের কাছে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। জসিমের হতদরিদ্র পরিবার সন্ত্রাসীদের চাহিদামতো মুক্তিপণের টাকা দিতে পারেনি। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে ওই সন্ত্রাসীরা তাকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা করে।

পরে খবর পেয়ে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে এবং এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে এক নারীকে আটক করে।

জসিমের জেঠাতো ভাই শাহাজউদ্দিন দুলাল জানান, তার চাচাতো ভাইকে এক নারী মোবাইল ফোনে ডেকে নেয়। পরে সন্ত্রাসীরা তাকে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে মুক্তিপণ দাবি করে। মুক্তিপণ না দেয়ায় তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় তিনি জড়িতদের গ্রেফতারের দাবি জানান।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশিদ চৌধুরী জানান, পিংকি নামের একটি মেয়ে ওই ছাত্রকে মোবাইল ফোনে ডেকে নেয়। সেখানে সন্ত্রাসীরা তাকে নির্যাতন করে হত্যা করে। মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। তিনি জানান, হত্যার ঘটনায় জসিমের বাবা আবুল কাশেম বাদি হয়ে ৯ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এ ঘটনায় পিংকির মা রৌশন আরাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অপর আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com