• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | রাত ৩:০৮
  • আর্কাইভ

রামগতির চররমিজে টেন্ডার ছাড়াই অর্ধকোটি টাকার গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ, জানু ০৭, ২০২১

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চররমিজ ইউনিয়নের ৬ নংওয়ার্ডের চৌমুহনী থেকে ওয়াপদা বেড়ী পর্যন্ত শিলকুপ রোডের প্রায় ২ কিলোমিটার সড়কের দুইপাশের নানা প্রজাতির অর্ধকোটি টাকার গাছ নিলাম ছাড়াই চররমিজ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিনের নেতৃত্বে সংশ্লিষ্টরা কেটে ফেলেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ফলে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। বিনা টেন্ডারে এই ভাবে লাখ-লাখ টাকার গাছ লুট হওয়া নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে।

বুধবার সরেজমিনে গিয়ে এলাকাবাসী ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার চররমিজ ইউনিয়নের চৌমুহনী-ওয়াপদা বেড়ীর দুপাশের সরকারী গাছ কোন প্রকার টেন্ডার ছাড়াই গাছ ব্যবসায়ীরা কেটে নিয়ে যাচ্ছে।

বিষয়টি জানতে চাইলে এলাকাবাসী বলেন চররমিজ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিনের নেতৃত্বে এই গাছগুলো কাটা হচ্ছে। পরে চররমিজ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মুঠোফোনে বলেন, এই সড়কের গাছ নিলাম দেওয়া হয়নি।

চররমিজ ইউনিয়ন পরিষদ, প্রশিকা নামের একটি এনজিও ও আমরা এলাকাবাসী তিন ভাগে ভাগ করে এই গাছ গুলো বিক্রি করেছি।সরকারী গাছ অনুমোদন ছাড়া কিভাবে কাটছেন এমন প্রশ্নের জবাবে  তিনি বলেন এগুলো ইউএনও স্যারের অনুমতি নিয়েই কাটা হচ্ছে। তবে ইউএনও গাছ কাটার বিষয়টি অবগত নয় বলে জানান তিনি।এই ভাবে দিনে-দুপুরে উজাড় করে সরকারী গাছ কাটা নিয়ে চলছে সমালোচনার ঝড়। চররমিজ ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম সারওয়ারের সাথে একাধিক বার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

রামগতি উপজেলা বন বিভাগের কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল বাছেত বলেন, এগুলো সরকারী গাছ। তবে বন বিভাগের অধিনে নয়। এর বেশি কিছু বলতে নারাজ তিনি।

রামগতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল মোমিন বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি অবগত নন।বন কর্মকর্তাকে দিয়ে গাছ কাটা বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেওয়া হবে।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com