• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • বুধবার | ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শরৎকাল | বিকাল ৪:৩৯
  • আর্কাইভ

রামগতিতে ইউএনওর বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ করতে বাধ্য করা হয়, অন্তরালে অপকৌশল

২:৩৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৯, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আজগর আলীকে অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করতে শিক্ষার্থীদের বাধ্য করা হয়েছে।

বুধবার (২৮ মার্চ) দুপুরে উপজেলার জামিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার কয়েকজন শিক্ষক উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে ছাত্রদের দিয়ে তাদের নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে বিক্ষোভের আয়োজন করে।

বিক্ষোভকারীরা জানায়, এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রায় এক হাজার ২শ’ শিক্ষার্থী রয়েছে। মাদ্রাসার শিক্ষক নিজাম উদ্দিনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ ও শিক্ষার্থীদের মারধর করার অভিযোগ করা হয়।সম্প্রতি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করা হয়। কিন্তু ইউএনও আজগর আলীর হস্তক্ষেপে মাদ্রাসায় পূণর্বহাল হতে চাইলে কর্তৃপক্ষ তাকে গ্রহণ করেননি। এ নিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদ্রাসার হিসাবের লেনদেন বন্ধ করার জন্য ব্যাংক ব্যবস্থাপককে নির্দেশ দেন ইউএনও। এর প্রতিবাদে ইউএনওর অপসারণ দাবি করে বিক্ষোভ-মিছিল করেন শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা।

এটিকে সম্পূর্ণ অসত্য উল্লেখ করে ইউএনও আজগর আলী  বলেন, চরকলাকোপা মাদ্রাসায় শিক্ষক বহিষ্কার নিয়ে শিক্ষকদের মধ্য দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। বহিষ্কৃত শিক্ষক নিজাম উদ্দিন মাদ্রসার অনিয়ম ও বহিষ্কার নিয়ে আমার বরারব অভিযোগ করেন। যার ফলে আমি উভয়পক্ষকে নিয়ে শুনানির জন্য নোটিশ দিই। শুনানীতে উত্থাপিত বিষয় বোধগম্য না হওয়ায় মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে আহ্বায়ক করে আমি তদন্ত কমিটি গঠন করি। পাশাপাশি আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় মাদ্রাসার ব্যাংক একাউন্ট সাময়িক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়। নিজাম উদ্দিনকে বহাল রাখার জন্য মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে কোন রকম হস্তক্ষেপ করেনি বলেও জানান।

এ বিষয়ে উপস্থিত লোকদের সাক্ষ্য নিলে প্রকৃত সত্য বেরিয়ে আসবে বলে  জানান ইউএনও।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com