• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • রবিবার | ১১ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | বসন্তকাল | সকাল ৭:১৮
  • আর্কাইভ

রামগঞ্জের ৪৫ এতিম শিশু পেল হিউম্যান রিলিফ ফাউন্ডেশনের শিক্ষা উপকরণ ও ক্রীড়া সামগ্রী

১:৪১ পূর্বাহ্ণ, ডিসে ১৮, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ৪৫জন এতিম শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেছে ‘হিউম্যান রিলিফ ফাউন্ডেশন’ নামে লন্ডন ভিত্তিক একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা।

বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে শহরের সিটি প্লাজায় একটি চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এতিমদের হাতে এ উপকরণ তুলে দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানের আয়োজন করে খাদেম ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন নামে আরেকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. হুমায়ুন রশিদ।

হিউম্যান রিলিফ ফাউন্ডেশনের হেড অব কমিউনিটি এন্ড এনগেজমেন্ট মো: খায়রুল শাহেদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন।

বক্তব্য রাখেন, খাদেম ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য গোলাম রহমান, সমন্বয়ক ও সাংবাদিক মাহমুদ ফারুক, ডা: আরমান খান, সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। পরে অতিথিবৃন্দ ৪৫ জন এতিম শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ হিসেবে স্কুল ব্যাগ, ক্রীড়া সামগ্রী ও কম্বল বিতরণ করেন। শেষে এতিম শিশু এবং তাদের অভিভাবক ও  আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন করা হয়।

ভবিষ্যতে ৪৫ এই এতিম শিশুদের পড়ালেখা, আর্থিক সহায়তা এবং মানসিক বিকাশের জন্য বিভিন্ন ধরনের সহযোগীতা করা হবে বলে জানিয়েছেন হিউম্যান রিলিফ ফাউন্ডেশনের হেড অব কমিউনিটি এন্ড এনগেজমেন্ট মো: খায়রুল শাহেদ।

তিনি বলেন, এতিম এবং পথ শিশুরা সঠিক গাইড লাইনের অভাবে তাদের মেধা কাজে লাগাতে পারে না। শিশুরাই আগামীতে দেশ চালাবে। তাদের মধ্যে মেধা আছে, সেটাকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে হবে। এতিম শিশুদের সহযোগীতার জন্য সব ধরণের সহযোগীতা করতে প্রস্তুত হিউম্যান রিলিফ ফাউন্ডেশন। এছাড়া তাদের পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা করা হবে।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি রামগঞ্জ থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, পথ শিশুরা শিক্ষা এবং সঠিক পরিচর্যার অভাবে বিভিন্ন ছোটখাটো অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ে। তারা যদি লেখাপড়া করে মানুষ হয়, তাহলে সমাজে অপরাধমূলক কর্মকান্ড কমে যাবে। তাই সমাজের বিত্তবান এবং সচেতন লোকেরা যদি তাদের পাশে গিয়ে দাঁড়ায়, তাহলে তারা প্রকৃত মানুষ হয়ে বেড়ে উঠতে পারবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. হুমায়ুন রশিদ বলেন, অনেক এতিম শিশু সাধারণত এতিম খানায় বা মাদ্রাসায় থেকে বেড়ে উঠে। কিন্তু হিউম্যান রিলিফ ফাউন্ডেশন একটি ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ নিয়েছে। তারা এতিম শিশুদের তাদের মায়ের কোলে থেকে যেন বেড়ে উঠতে পারে এবং সু-শিক্ষা নিয়ে তাদের মেধাকে কাজে লাগাতে পারে, সে লক্ষ্যে প্রদক্ষেপ নিয়েছে। যারা এতিম আছে- তারা আর নিজেদের সমাজের বঞ্চিত হিসেবে মনে করবে না। আমি হিউম্যান রিলিফের এ কর্মকান্ডকে সাধুবাদ জানাই। এছাড়া এতিমের জন্য আনা অর্থ বা সামগ্রী যেন সঠিকভাবে ব্যবহার হয়, সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে সংশ্লিষ্টদের প্রতিও অনুরোধ জানান তিনি।

Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com