• ঢাকা,বাংলাদেশ
  • শুক্রবার | ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | বর্ষাকাল | সকাল ৬:১১
  • আর্কাইভ

ভবানীগঞ্জে নৌকার বিপক্ষে তিন স্বতন্ত্র প্রার্থীর ঐক্য

৩:১৯ অপরাহ্ণ, ডিসে ১৩, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ এর নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে ঐক্যমঞ্চ থেকে প্রচারণার ঘোষণা দিয়েছেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদে  তিন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী। ভোটে নৌকার পক্ষে অপপ্রভাব বিস্তার সহ নানাভাবে ভোটারদের অধিকারহরণের আশঙ্কায় তা প্রতিরোধ করতে ঐক্যমঞ্চে প্রচারণার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে জানান ওই স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।
প্রচারণা শুরুর ৫ দিনের মাথায় রবিবার (১৩ ডিসেম্বর) রাতে স্থানীয় ব্যাবসায়ীদের নিয়ে ভবানীগঞ্জ বাজারে অনুষ্ঠিত স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল হালিম মাষ্টার (মোটর সাইকেল) এর নির্বাচনী মত বিনিময় সভায় আরও দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী ফজলুর রহমান (রজনীগন্ধা ফুল) ও সাইফুল হাসান রনি (চশমা) উপস্থিত থেকে নির্বাচনী প্রচারণা ঐক্য মঞ্চের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন।
এসময় তারা জানান ঐক্যমঞ্চে নির্বাচনী প্রচারণায় তাদের সাথে আরও তিনজন স্বতন্ত্র প্রার্থী সহ ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রয়েছেন। এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এর মধ্যে অপর চারজন স্বতন্ত্র প্রার্থীও নির্বাচনে অপপ্রভাব বিস্তার ও সহিংসতার আশঙ্কায় নৌকা প্রতীকের আব্দুল খালেকের বিরুদ্ধে সংক্ষুব্ধ রয়েছেন বলে জানান তারা।
এদিন একই মঞ্চে দাঁড়িয়ে পৃথক প্রতীকে নিজেদের জন্য ভোট চাইলেন ওই তিন স্বতন্ত্র প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী।
এসময় উপস্থিত ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনায় প্রার্থীদের প্রত্যেকে এলাকার উন্নয়নে ভিন্ন ভিন্ন কথায় প্রতিশ্রুতি উপস্থাপন করলেও নির্বাচনে শান্তি সম্প্রীতি রক্ষায় অভিন্ন প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেছেন। এছাড়া ভোটে বাধামুক্ত নির্বিঘ্ন পরিবেশ সংরক্ষণে এক হয়ে ভূমিকা রাখবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন এসব প্রার্থীরা।
ঐক্যমঞ্চে পৃথক বক্তৃতায় ওই স্বতন্ত্র প্রার্থীরা উপস্থিত ব্যাবসায়ী ও ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করে বলেন, এলাকার উন্নয়নে ও জনগণের বৃহত্তর স্বার্থ সংরক্ষণে আপনাদের চিন্তা-চেতনায় যে প্রার্থীকে অধিকতর যোগ্য মনে হবে তাকেই ভোট দিবেন। এক্ষেত্রে  আপনারা স্বাধীন মত প্রকাশ করবেন গোপনে ভোট প্রয়োগের মাধ্যমে। ভোটার হিসেবে এটা সকলের নাগরিক অধিকার। এই অধিকার সংরক্ষণে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।
তারা আরও বলেন, যদি কোনভাবে ভোটে অধিকার হরণ করার হীনমানসিকতায় কোন প্রার্থী বেআইনী ভাবে অপপ্রভাব বিস্তার করতে চায় তাহলে সকলে মিলে একসাথে তা প্রতিহত করতে হবে।
মোটরসাইকেল প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবদুল হালিম মাষ্টার ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নে যোগ্য ব্যক্তি থাকা স্বর্তেও জনবিচ্ছিন্ন একজন ব্যক্তিকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়েছে। এতে যোগ্যদের অবমূল্যায়ন করা হয়েছে। ফলে আমরা ৬ জন প্রার্থী একজোট হয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি স্বতন্ত্র হিসেবে প্রার্থী হবো। এ ইউনিয়নে যেই চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবে, সে যেন সুষ্ঠু ভোটের মাধ্যমে জনগণের ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। কিন্তু নৌকা প্রতীকের যিনি প্রার্থী আছেন, তিনি চোরাই পথে প্রতীক এনেছেন, আবার চোরাই পথে অসৎ পন্থায় চেয়ারম্যান হতে চাচ্ছেন। কিন্তু আমরা ৬ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী আছি। কোনভাবেই জনগণের ভোট চুরি করে কাউকে চেয়ারম্যান হতে দেব না। জনগণের ভোটের অধিকার রক্ষার্থে প্রয়োজনে নিজের শেষ রক্তবিন্দু দিতে রাজি আছি।
চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ছাড়াও ঐক্যমঞ্চের ওই সভায় ওয়ার্ড মেম্বার পদে একাধিক প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী, বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিকদলের নেতা-কর্মী ও সামাজিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে ইউনিয়নের চরমনসা এলাকায় পৃথক মঞ্চে একইভাবে ভোট প্রার্থনা করলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মোক্তার হোসেন বিপ্লব (আনারস), সাইফুল হাসান রনি (চশমা) ও মামুনুর রশিদ ভূঁইয়া (ঘোড়া)।
স্থানীয়রা জানায়, আগামী ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে এই ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর চেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা শক্ত অবস্থানে রয়েছে।
সদর উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান সাইফুল হাসান রনি (চশমা) এবং তার মা মমতাজ বেগম (টেলিফোন) ছাড়াও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল হালিম মাষ্টার (মোটর সাইকেল), সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় শ্রমিকলীগের জেলা শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক মামুনুর রশিদ (ঘোড়া), সাবেক সহ-সভাপতি মোক্তার হোসেন বিপ্লব (আনারস), সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান ঢালী (রাজনীগন্ধা) স্বতন্ত্র হিসেবে প্রার্থী হয়েছেন।
এছাড়া বিএনপিপন্থী শাহ মো. এমরান (অটোরিক্সা) ও জাহাঙ্গীর আলম (টেবিল ফ্যান) এবং ইসলামী আন্দোলনের মাওলানা মহিউদ্দিন (হাতপাখা) প্রার্থী ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল খালেক বাদলের সহধর্মীনী তাহমিনা আক্তার (ঢোল) প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী রয়েছেন।
চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আগামী ২৬ ডিসেম্বর ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর মাধ্যমে ভবানীগঞ্জ ইউপিতে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
Spread the love

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ



Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com